July 14, 2024, 1:43 am
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৭, ৮, ৯নং ওয়ার্ডে প্রথম যুব কাউন্সিলর রাকিবুল ইসলাম ইফতি যতোই প্রতিকূলতা আসুক না কেন যতটুকু সম্ভব ভালোবাসার বিনিয়োগ করুন:- ছাত্রলীগ নেতা কাউসার। মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি কেন এত অসম্মান! শিবপুরে স্মার্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্মচারী ফেডারেশনের সম্মেলন অনুষ্ঠিত সামাজিক সংগঠন ‘ধলেশ্বরী তীরে’র উদ্যোগে বৃক্ষরোপন ও বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত সর্বজনীন পেনশন স্কিম সংক্রান্ত অবহিতকরণ সভা রায়পুরায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ রায়পুরায় নবনির্মিত শহীদ মিনারের শুভ উদ্বোধন করেন ফরিদা ইয়াসমিন শিবপুরে কৃষকলীগের বৃক্ষ রোপন কর্মসূচীর উদ্বাধন রায়পুরায় নদীতে ভাসছিল অজ্ঞাতনামা মরদেহ, যা বলছে এলাকায় বাসী..!!
নোটিশঃ
আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। নিউজ শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকুন।

গজারিয়ায় ভবেরচর জেনারেল হাসপাতালে অপ চিকিৎসায় নবজাতক মৃত্যু’র অভিযোগ

রানা সরকারঃ
July 14, 2024, 1:43 am

গজারিয়ামুন্সীগঞ্জ)প্রতিনিধি:গজারিয়ায়  উপজেলার ভবেরচর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের  অপচিকিৎসার কারনে নবজাতক  শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (১৩ এপ্রিল )সকাল ১১ঘটিকায় উপজেলার ভবেরচর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে নরমাল ডেলিভারি করানোর সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জন্য প্রসূতির স্বজনরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেছেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাসপাতালে উত্তেজনা দেখা যায়।

মারা যাওয়া নবজাতক উপজেলার  ইমামপুর ইউনিয়নের বড় কালিপুরা গ্রামের বাসিন্দা আমির হাসানের ছেলে বলে জানান যায়।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রসুতি মমতাজ  আক্তারের শনিবার সকালে ৯ টায় তার প্রসব ব্যথা হলে গজারিয়া  উপজেলা ভবেরচর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে ভর্তি করান,
সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ডাক্তার ছাড়াই নার্সদের মাধ্যমে ঐ প্রসূতির নরমাল ডেলিভারির চেষ্টা   করতে গিয়ে নবজাতক ঐ শিশুকে মেরে ফেলে।জানা যায়,ডেলিভারির সময় নবজাতক শিশুর মাথা আটকে যায়,এ সময় প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে থাকলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিক ঐ প্রসুতিকে ঢাকা নিয়ে যেতে বলে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স এর ব্যবস্থা করে ঢাকা মেডিকেলের রেফার করে।

নিহতের নবজাতকের বাবা আমির হাসান জানান, চিকিৎসায় অবহেলার কারণে আমার বাচ্চার মৃত্যু হয়েছে।ভর্তি নেওয়ার পর থেকেই নানা ধরনের অবহেলা করতে থাকেন হাসপাতালের লোকজন।
ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে নেওয়ার জন্য রওনা হলে পথের মধ্যে প্রচুর রক্তক্ষনে ও ব্যথার যন্ত্রণায় কাথর হলে কো- অ্যাক্টিভ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমার বাচ্চাকে মৃত ঘোষণা করেন।এ বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলতে গেলে তাঁরা আমাকে হুমকি দিচ্ছেন।

এদিকে ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিহতের নবজাতকের  আত্মীয়-স্বজন হাসপাতালে জড়ো হলে উত্তেজনা দেখা দেয়।

এ বিষয়ে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সুমাইয়া ইয়াকুব বলেন, বিষয়টি শুনেছি,তবে ভুক্তভোগী কেউ অভিযোগ দেয়নি, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গজারিয়া থানার অফিসার ইন চার্জ মো:রাজিব খাঁন বলেন,এ বিষয়ে একটা অভিযোগ পেয়েছি, যাচাই বাছাই পূর্বক আইন গত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এরকম আরো নিউজ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর